আমাদের পরিচিতি

গ্রামীণফোন যাত্রা শুরু করে ২২ বছর আগে। বাংলাদেশের প্রতিটি ব্যক্তির হাতে মোবাইল ফোন পৌছে দেওয়ার লক্ষ্য নিয়ে সাশ্রয়ী মূল্যের মোবাইল ফোন পরিষেবা চালু হয়েছিলো।

বর্তমানে বাংলাদেশের ১ নম্বর নেটওয়ার্ক গ্রামীণফোন। গ্রাহকদের জীবনকে ডিজিটালাইজ করা ও সামাজিক ক্ষমতায়নের ক্ষেত্রে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিচ্ছে গ্রামীণফোন; যাতে গ্রাহকরা তাদের সম্ভাব্যতা পুরোপুরি উপলব্ধি করতে পারে। দ্রুত গতির 3G ও 4G ইন্টারনেটের উপর ভিত্তি করে গ্রামীণফোন বিনোদননির্ভর জিপি মিউজিক, ওয়াওবক্স এবং বায়োস্কোপের মতো ইনোভেটিভ ডিজিটাল সল্যুশন সরবরাহ করেছে। অন্যদিকে, স্বাস্থ্য প্রয়োজনীয়তার জন্য টনিক এবং গ্রাহকদের জীবনকে আরও সুশৃঙ্খল ও নিয়ন্ত্রিত করার জন্য Gpay এবং MyGp এর মতো সেবাও দিচ্ছে।  

দীর্ঘ এই পথচলায় গ্রামীণফোন সবসময় গ্রাহকদের বিশ্বাস অর্জন করেছে। এরই ফলাফল হিসেবে দেখা যায় “০১৭” সিরিজের নম্বরে অধিক চাহিদা তৈরি হয় এবং তা শেষ পর্যন্ত বজায় থাকে।  বর্তমানে গ্রামীণফোন দেশব্যাপী ০১৭ এবং ০১৩ সিরিজের মাধ্যমে সেবা প্রদান করে আসছে।

গ্রামীণফোন ২০১৯ এর এপ্রিল পর্যন্ত ৭৪ মিলিয়ন গ্রাহককে সেবা দিয়ে যাচ্ছে।

আপনি জানেন কি?

  • দেশব্যাপী নেটওয়ার্ক অবকাঠামো তৈরিতে গ্রামীণফোন এখন পর্যন্ত ৩৪৭.৪ বিলিয়ন টাকা বিনিয়োগ করেছে।
  • গ্রামীণফোন বাংলাদেশের সর্বোচ্চ কর প্রদানকারীদের একজন, বিগত বছরগুলোতে প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষভাবে মোট ৬৬৯.৫ বিলিয়ন টাকা সরকারকে কর প্রদান করেছে।
  • দেশে বর্তমানে প্রায় সবগুলো উপজেলা এবং জেলা শহরগুলোতে ৩,৭৬,২৮৫টি ইউনিক রিচার্জ আউটলেট রয়েছ। এছাড়াও বিভাগীয় শহরগুলোতে ৬,৮৩৬ এক্সপ্রেস স্টোর ও গ্রাহকদের ডিজিটাল সেবার অভিজ্ঞতা প্রদানের লক্ষ্যে ২টি জিপি লাউঞ্জ রয়েছে।
  • গ্রামীণফোনের ২৪০০ স্থায়ী এবং অস্থায়ী কর্মচারী রয়েছে।
  • আমাদের জিপি একসিলারেটর প্রোগ্রামের মাধ্যমে এখন পর্যন্ত ২৬টি স্টার্টাপ কোম্পানিকে নগদ ২.৯৮ মিলিয়নের সহায়তা এবং অ-আর্থিক ১৪ মিলিয়ন টাকার সহায়তা প্রদান করেছে।

grameenphone